ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল চুরি হয়েছিল। ছাগল বলেই হয়তো চোর ধরতে অবহেলা ছিল পুলিশের। কিন্তু অভিযোগের খাতায় চুরির কথা নথিভুক্ত ছিলই। সেই মামলায় ৪১ বছর পর ধরা পড়ল ৫৮ বছরের এক ব্যক্তি। যদিও ঘটনার সময় সে ছিল ১৭ বছরের সদ্য তরুণ।
ভারতের ত্রিপুরা পুলিশ সূত্রে খবর, ১৯৭৮ সালে পশ্চিম ত্রিপুরার রানির বাজার থেকে ছাগল চুরি করেছিল বাবা-ছেলে। তখনকার দিনে ছাগলটির দাম ছিল ৪৫ টাকা। তখন থেকেই ফেরার ছিল বাবা-ছেলে। ফলে বয়সের কারণে বাবা মোহন কোউল মারা গেলেও ইয়ার ছেলের বয়স এখন ৫৮ বছর। নাম বাচু কাউল। বর্তমান বাজারে চুরি যাওয়া ছাগলের দাম ৩০০০ টাকার কম নয়।

পুলিশ জানায়, ৫৮ বছরের এই ব্যক্তি ৪১ বছরের পুরানো একটি মামলায় আসামি ছিলেন। শেষ পর্যন্ত তিনি ধরা পড়েছেন। শুক্রবার রাতে তিনি গ্রেফতার হন। জানা গেছে, বর্তমানে বাচু কাউল আসামের একটি চা-বাগানে শ্রমিকের কাজ করেন। সূত্রের খবর, বাচুকে আগামী সোমবার নিম্ন আদালতে পেশ করে সাত দিনের পুলিশ হেফাজত চাওয়া হবে।

ছাগল চুরি হয়েছিল। ছাগল বলেই হয়তো চোর ধরতে অবহেলা ছিল পুলিশের। কিন্তু অভিযোগের খাতায় চুরির কথা নথিভুক্ত ছিলই। সেই মামলায় ৪১ বছর পর ধরা পড়ল ৫৮ বছরের এক ব্যক্তি। যদিও ঘটনার সময় সে ছিল ১৭ বছরের সদ্য তরুণ।
ভারতের ত্রিপুরা পুলিশ সূত্রে খবর, ১৯৭৮ সালে পশ্চিম ত্রিপুরার রানির বাজার থেকে ছাগল চুরি করেছিল বাবা-ছেলে। তখনকার দিনে ছাগলটির দাম ছিল ৪৫ টাকা। তখন থেকেই ফেরার ছিল বাবা-ছেলে। ফলে বয়সের কারণে বাবা মোহন কোউল মারা গেলেও ইয়ার ছেলের বয়স এখন ৫৮ বছর। নাম বাচু কাউল। বর্তমান বাজারে চুরি যাওয়া ছাগলের দাম ৩০০০ টাকার কম নয়।

পুলিশ জানায়, ৫৮ বছরের এই ব্যক্তি ৪১ বছরের পুরানো একটি মামলায় আসামি ছিলেন। শেষ পর্যন্ত তিনি ধরা পড়েছেন। শুক্রবার রাতে তিনি গ্রেফতার হন। জানা গেছে, বর্তমানে বাচু কাউল আসামের একটি চা-বাগানে শ্রমিকের কাজ করেন। সূত্রের খবর, বাচুকে আগামী সোমবার নিম্ন আদালতে পেশ করে সাত দিনের পুলিশ হেফাজত চাওয়া হবে।

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *